الصلوۃ والسلام علیک یا رسول اللہ (صلی اللہ علیہ وسلما) اللہ رب محمد صلی علیہ وسلما و علی زویہ والہ ابدالدھور وکرما আসসলাতু ওয়াসসলামু আলাইকা ইয়া রাসুলাল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম).
Gulam-E-Mustafa Hoon Din Ka Paigam Laya Hoon, Pilaan-E-Ke Liye Ahmad Raza Ka Jaam Laya Hoon.

যেসব_পশু_কুরবানী_করা_নিষেধঃ


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে-
ﻭﻋﻦ ﺣﻀﺮﺕ ﻋﻠﻰ ﻋﻠﻴﻪ ﺍﻟﺴﻼﻡ ﻗﺎﻝ ﺍﻣﺮﻧﺎ ﺭﺳﻮﻝ ﺍﻟﻠﻪ
ﺻﻠﻰ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻠﻴﻪ ﻭﺳﻠﻢ ﺍﻥ ﻧﺴﺘﺸﺮﻑ ﺍﻟﻌﻴﻦ ﻭﺍﻻﺫﻥ ﻭﺍﻥ
ﻻﻧﻀﺤﻰ ﺑﻤﻘﺎﺑﻠﺔ ﻭﻻﻣﺪﺍﺑﺮﺓ ﻭﻻ ﺷﺮﻗﺎﺀ ﻭﻻﺧﺮﻗﺎﺀ .
অর্থ:- “হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহিস সালাম উনার থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন- নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক
ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি আমাদের কে নির্দেশ মুবারক দিয়েছেন, আমরা যেন (পবিত্র কুরবানীর পশুর) চোখ ও কান উত্তম রূপে দেখে নেই এবং আমরা যেন পবিত্র
কুরবানী না করি সেসব পশু দ্বারা, যেসব পশুর কানের অগ্রভাগও শেষ ভাগ কাটা অথবা কান গোলাকারে ছিদ্র বা যার কান পাশের দিকে। (তিরমিযী শরীফ, আবু দাউদ শরীফ, নাসায়ী শরীফ ও দারিমী শরীফ) অন্য পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে-
ﻭﻋﻦ ﺣﻀﺮﺕ ﻋﻠﻰ ﻋﻠﻴﻪ ﺍﻟﺴﻼﻡ ﻗﺎﻝ ﻧﻬﻰ ﺭﺳﻮﻝ ﺍﻟﻠﻪ
ﺻﻠﻰ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻠﻴﻪ ﻭﺳﻠﻢ ﺍﻥ ﻧﻀﺤﻰ ﺑﺎﻋﻀﺐ ﺍﻟﻘﺮﻥ ﻭﺍﻻﺫﻥ
.
অর্থ:- হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহিস সালাম উনার থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন- নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি নিষেধ করেছেন, আমরা যেন শিং ভাঙ্গা ও কান কাটা পশু দ্বারা পবিত্র কুরবানী নাকরি।” (ইবনে মাজাহ শরীফ) আরো ইরশাদ মুবারক হয়েছে,
ﻭﻋﻦ ﺣﻀﺮﺕ ﺍﻟﺒﺮﺍﺀ ﺑﻦ ﻋﺎﺯﺏ ﺭﺿﻰ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻨﻪ ﺍﻥ ﺭﺳﻮﻝ
ﺍﻟﻠﻪ ﺻﺎﻟﻰ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻠﻴﻪ ﻭﺳﻠﻢ ﺳﺌﻞ ﻣﺎﺫﺍ ﻳﺘﻘﻰ ﻣﻦ ﺍﻟﻀﺤﺎﻳﺎ
ﻓﺎﺷﺎﺭ ﺑﻴﺪﻩ ﻓﻘﺎﻝ ﺍﺭﺑﻌﺎ ﺍﻟﻌﺮﺟﺎﺀ ﺍﻟﺒﻴﻦ ﻇﺎﻋﻬﺎ ﻭﺍﻟﻮﺭﺍﺀ
ﺍﻟﺒﻴﻦ ﻋﻮﺭﻫﺎ ﻭﺍﻟﻤﺮﻳﻀﺔ ﺍﻟﺒﻴﻦ ﻭﺭﺿﻬﺎ ﻭﺍﻟﻌﺠﻔﺎﺀ ﺍﻟﺘﻰ
ﻻﺗﻨﻘﻰ .
অর্থ:- “হযরত বারা ইবনে আযিব রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, একবার নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক
ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে জিজ্ঞাসা করা হলো, 'পবিত্র কুরবানীর জন্য কোনো রকমের পশু হতে বেঁচে থাকা উচিত?’ নূরে
মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি আপন হাত মুবারক দ্বারা ইশারা করে বললেন, ‘চার রকমের পশু
হতে। যেমন- ১. খোড়া- যার খোঁড়ামি সুস্পষ্ট। ২. কানা- যার কানামি সুস্পষ্ট। ৩. রুগ্ন- যার রোগ
সুস্পষ্ট। ৪. দুর্বল- যার হাড়ের মজ্জা নাই অর্থাৎ শুকিয়ে গেছে।” (তিরযিমী শরীফ, আবু দাউদ
শরীফ, নাসাঈ শরীফ, ইবনে মাজাহ শরীফ, দারিমী শরীফ) অর্থাৎ নিম্নোক্ত দোষ-ত্রুটিযুক্ত পশু কুরবানী করলে কুরবানী ছহীহ হবে না-
১. দৃষ্টিহীনতা সুস্পষ্ট, ২. অতি রুগ্ন, ৩. খোড়া, ৪. এমন জীর্ণ-শীর্ণ যে তার হাড়ে মগজ নেই, ৫. কানের অগ্রভাগ অথবা পশ্চাদভাগ কর্তিত,        ৬. কান ফাঁড়া, ৭. কান গোলাকার ছিদ্রযুক্ত,
৮. শিং ভাঙ্গা, ৯. পঙ্গু, ১০. চক্ষুহীন।

Comments

Sign In or Register to comment.