الصلوۃ والسلام علیک یا رسول اللہ (صلی اللہ علیہ وسلما) اللہ رب محمد صلی علیہ وسلما و علی زویہ والہ ابدالدھور وکرما আসসলাতু ওয়াসসলামু আলাইকা ইয়া রাসুলাল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম).
Gulam-E-Mustafa Hoon Din Ka Paigam Laya Hoon, Pilaan-E-Ke Liye Ahmad Raza Ka Jaam Laya Hoon.

★কুরবানীর বর্ণনা★



কুরবানী একটী আর্থিক ইবাদত, যেটা সম্পদশালীর উপর ওয়াজিব। নির্দিষ্ট পশু নির্দিষ্ট দিনে আল্লাহর ওয়াস্তে সাওয়াবের নিয়তে জবেহ করা টা হচ্ছে কুরবানী।মুসলমান,মুকীম, সাহিবে নেসাবের অধিকারী ,স্বাধীন, এর উপরে কুরবানী  ওয়াজিব।

মাসআলাঃ যে রকম পুরুষের উপর কুরবানী ওয়াজিব, সে রকম মহিলাদের উপরে ও ওয়াজিব। ।(দুররুল মুখতার)  

মাসআলাঃমুসাফিরের উপর কুরবানী ওয়াজিব নয় কিন্তু নফল হিসেবে করতে পারে সাওয়াব পাবে। (দুররুল মুখতার)

মাসআলাঃ সাহিবে নেসাবের অধিকারী হওয়া বলতে অতটুকু সম্পদ হওয়া বুঝায় যতটুকু সম্পদ হলে সাদকায়ে ফিতর ওয়াজিব হয় অর্থাৎ মূল ব্যবহারিক সামগ্রী ব্যতীত দুশত দেরহামের (52½ তোলা চান্দি বা 7½তোলা স্বর্ণ) মালিক হওয়া।
(দুররুল মুখতার, আলমগীরি) 

বিঃদ্রঃ- কাফেরদের কে কুরবানীর মাংস দেওয়া জায়েজ নয়।

সাবধান, সাবধান, সাবধান!!!!
কুরবানীর চামড়া অথবা বিক্রয় করে টাকা অহাবী, দেওবান্দী, তাবলীগি, ও জামাতে ইসলামীদের মাদ্রাসায় বা তহবিলে দান করা শক্ত হারাম।

মাদ্রাসা আহলে সুন্নাতের হওয়া চাই।

কুরবানীর সময়ঃ ১০ই জ্বিলহজ্বের সুবহে সাদেক থেকে বার তারিখের সূর্যাস্ত পর্যন্ত অর্থাৎ তিন দিন দুরাত কুরবানীর সময়। তবে দশ তারিখ সবচেয়ে আফজাল, এর পর এগার তারিখ তারপর বার তারিখ।

Comments

Sign In or Register to comment.